১. বিদ‘আত-এর ব্যাখ্যা ও তার পরিণাম

১. বিদ‘আত-এর ব্যাখ্যা ও তার পরিণাম

পারিভাষিক অর্থে সুন্নাতের বিপরীত বিষয়কে ‘বিদ‘আত’ বলা হয়। আভিধানিক অর্থে বিদ‘আত হ’ল-

اَلْبِدْعَةُ هِىَ كُلُّ مَا أَحْدَثَ عَلَى غَيْرِ مِثَالٍ سَابِقٍ

‘ঐ সকল নতুন সৃষ্টি, যার কোন পূর্ব দৃষ্টান্ত ছিল না’। শারঈ অর্থে-

اَلْبِدْعَةُ هِىَ الطَّرِيْقَةُ الْمُخْتَرَعَةُ فِى الدِّيْنِ تُضَاهِى الشَّرِيْعَةَ يُقْصَدُ بِهَا التَّقَرُّبُ إِلىَ اللهِ وَلَمْ يَقُمْ عَلَى صِحَّتِهَا دَلِيْلٌ شَرْعِىٌّ صَحِيْحٌ اُصْلاً أَوْ وَصَفًا كما قاله الشاطبى

‘আল্লাহর নৈকট্য হাছিলের উদ্দেশ্যে ধর্মের নামে নতুন কোন প্রথা চালু করা, যা শরী‘আতের কোন ছহীহ দলীলের উপরে ভিত্তিশীল নয়’।[1]

মা আয়েশা (রাঃ) প্রমুখাত  বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এরশাদ করেন,

مَنْ أَحْدَثَ فِىْ أَمْرِنَا هذَا مَا لَيْسَ مِنْهُ فَهُوَ رَدٌّ، متفق عليه- ‘যে ব্যক্তি আমাদের শরী‘আতে এমন কিছু নতুন সৃষ্টি করল, যা তার মধ্যে নেই, তা প্রত্যাখ্যাত’।[2] তিনি আরও বলেন, … ‘তোমাদের উপরে পালনীয় হ’ল আমার সুন্নাত ও আমার খুলাফায়ে রশেদীনের সুন্নাত। তোমরা উহা কঠিনভাবে আকড়ে ধর এবং মাড়ির দাঁত দিয়ে কামড়ে ধর’।

وَإِيَّاكُمْ وَمُحْدَثَاتِ الْأُمُوْرِ فَإِنَّ كُلَّ مُحْدَثَةٍ بِدْعَةٌ وَكُلَّ بِدْعَةٍ ضَلاَلَةٌ

‘আর তোমরা দ্বীনের মধ্যে নতুন সৃষ্টি করা হ’তে সাবধান থাক। নিশ্চয়ই প্রত্যেক নতুন সৃষ্টিই বিদ‘আত ও প্রত্যেক বিদ‘আতই গোমরাহী’। জাবের  (রাঃ) হ’তে নাসাঈ শরীফের অন্য বর্ণনায় এসেছে, وَكُلَّ ضَلاَلَةٍ فِى النَّارِ   ‘এবং প্রত্যেক গোমরাহীর পরিণাম জাহান্নাম’।[3] খুলাফায়ে রাশেদীনের সুন্নাত মূলতঃ রাসূলেরই সুন্নাত। কারণ তাঁরা কখনোই রাসূলের  প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ অনুমোদনের বাইরে কোন কাজ করতেন না। যুগে  যুগে বৈষয়িক প্রয়োজনে সৃষ্ট বিভিন্ন আবিষ্কার সমূহ  যেমন সাইকেল, ঘড়ি, চশমা, মটরগাড়ী, উড়োজাহায ইত্যাদি বস্ত্তসমূহ আভিধানিক অর্থে বিদ‘আত বা নতুন সৃষ্টি হ’লেও শারঈ পরিভাষায় কখনোই বিদ‘আত নয়। তাই এগুলোকে গুনাহের বিষয় বলে গণ্য করা অন্যায়। অনেকে এগুলোকে অজুহাত করে ধর্মের নামে  সৃষ্ট মীলাদ,  ক্বিয়াম, শবেবরাত, কুলখানি, চেহলাম ইত্যাদিকে শরী‘আতে বৈধ কিংবা ‘বিদ‘আতে হাসানাহ’ বলে থাকেন, যেটা আরো অন্যায়। যদি কেউ জেনে শুনে  এগুলো বলেন বা করেন, তাহ’লে নিজেরা কবীরা গোনাহগার হবেন এবং তাদের কথা শুনে বা তাদের দেখাদেখি যারা ঐসব বিদ‘আত করবেন, তাদের সমপরিমাণ গুনাহ ঐ সকল ব্যক্তিদের আমলনামায় যুক্ত হবে। যেমন আল্লাহ বলেন,

لِيَحْمِلُوْا أَوْزَارَهُمْ كَامِلَةٌ يَوْمَ الْقِيَامَةِ وَمِنْ أَوْزَارِ الَّذِيْنَ يُضِلُّوْنَهُمْ بِغَيْرِ عِلْمٍ أَلاَ سَآءَ مَا يَزِرُوْنَ-

‘ক্বিয়ামতের দিন ওরা পূর্ণমাত্রায় বহন করবে নিজেদের পাপভার এবং ঐসব লোকের পাপভার যাদেরকে ওরা তাদের অজ্ঞতাহেতু বিপথগামী করে। সাবধান! খুবই নিকৃষ্ট বোঝা তারা বহন করে থাকে’ (নাহল ২৫)

রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) এরশাদ করেন,

مَنْ دَعَا إِلى هُدًى كَانَ لَهُ مِنَ الْأجْرِ مِثْلُ اُجُوْرِ مَنْ تَبِعَهُ لاَيَنْقُصُ ذلِكَ مِنْ اُجُوْرِهِمْ شَيْئًا وَمَنْ دَعَا إِلى ضَلاَلَةٍ كَانَ عَلَيْهِ مِنَ الْإِثْمِ مِثْلُ آثَامِ مَنْ تَبِعَهُ لاَيَنْقُصُ ذلِكَ مِنْ آثَامِهِمْ شَيْئًا،

‘যে ব্যক্তি মানুষকে হেদায়াতের পথে আহবান করল, তার জন্য ঐ পরিমাণ পুরস্কার রয়েছে, যে পরিমাণ পুরস্কার তার অনুসারীগণ পাবে। তাদেরকে তাদের পুরস্কার হ’তে এতটুকুও কম করা হবে না। পক্ষান্তরে যে ব্যক্তি মানুষকে ভ্রষ্টতার দিকে আহবান জানালো, তার উপরে ঐ পরিমাণ গুনাহ চাপানো হবে, যে পরিমাণ গুনাহ তার অনুসারীদের উপরে চাপবে। তাদেরকে তাদের গুনাহ থেকে এতটুকুও কম করা হবে না’।[4] সুফিয়ান ছাওরী (রাঃ) এজন্য বলেন, ‘ইবলীসের নিকটে অন্যান্য গুনাহের চাইতে বিদ‘আত অধিক প্রিয়। কেননা গোনাহগার তওবা করে, কিন্তু বিদ‘আতী তওবা করে না’ (এজন্য যে, সে সেটাকে নেকীর কাজ ভেবেই করে থাকে)।[5]

 

[1] . সলীম  হেলালী, আল-বিদআহ, পৃঃ ৬; গৃহীতঃ শাত্বেবী, আল-ইতিছাম (বৈরুতঃ দারুল মারিফাহ), ১/৩৭ পৃঃ।

[2] . মুত্তাফাক্ব আলাইহ, মিশকাত হা/১৪০।

[3] . আহমাদ, আবুদাঊদ, তিরমিযী, মিশকাত হা/১৬৫; নাসাঈ হা/১৫৭৯ ঈদায়েন-এর খুৎবাঅধ্যায়।

[4] . মুসলিম, মিশকাত, হা/১৫৮, ২১০।

[5] . ইবনু তায়মিয়াহ।

Advertisements
This entry was posted in 01. বিদ‘আত-এর ব্যাখ্যা ও তার পরিণাম, 02. মীলাদ প্রসঙ্গ. Bookmark the permalink.

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s